Freelance-Career

ফ্রিল্যান্সিং বনাম দেশীয় চাকুরি নামের সোনার হরিণ


আমার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আপওয়ার্কে খুব একটা কাজ করা হয় না। তবে মাঝে মধ্যে কোন ক্লায়েন্ট ইনভাইটেশন পাঠালে আর কাজ দেখে পছন্দ হলে করে থাকি। তো সে করম-ই আজ একটা ক্লায়েন্ট ইনভাইটেশন পাঠালো আর তার সাথে কাজের ব্যাপারে আলাপের পর কাজও পছন্দ হলো। যেহেতু প্রজেক্টটা একটু বড় আর ডেড লাইনও কম (7 দিন) তাই প্রজেক্টের দাম 650 ডলার। তো কথা হলো 650 ডলার মানে বাংলাদেশী টাকায় যা প্রায় 50,000 টাকা।
 
যেখানে আমাদের দেশীয় চাকুরির ক্ষেত্রে 30 থেকে 40 হাজার টাকা বেতনের চাকুরি কে ভাল মানের চাকুরি হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। সেখানে একজন ফ্রিল্যান্সার এর 7 দিনের ইনকাম সারা মাসের বেতনের চেয়েও বেশি। তবুও অধিকাংশ লোক লেখাপড়া শেষ করে প্রথম 1-2 বছর চাকুরি নামের সোনার হরিণ ধরতে কাটিয়ে দেয়। অথচ এই সময়ের মধ্যে নিজের পছন্দ মত একটা বিষয়ের উপর কাজ শিখে স্কিলড হতে পারে এবং আমাদের দেশের ভাল মানের চাকুরির সমান বা তারও বেশি ইনকাম করতে পারে। আর কাজের ক্ষেত্রেও একজন ফ্রিল্যান্সারের যথেষ্ট স্বাধীনতা থাকে।
 
সবাইকে যে অনলাইনে ই কাজ করতে হবে আমি এমন কথা বলছি না। কারন ফ্রিল্যান্সার মানে মুক্ত পেশাজিবি সেক্ষেত্রে এটা যেকোন ধরনের কাজ হতে পারে। তবে সেটা অবশ্যই বৈধ কোন কাজ। হতে পারে দেশিয় কোন ছোট খাট ব্যবসা অতবা অনলাইন বেইজড কোন ব্যবসা/ সেবা ইত্যাদি।
 
যেহেতু আমি ইন্টারনেট ভিত্তিক ব্যাবসা এবং সেবা এ ধরনের কাজে সাথে জরিত তাই এই বিষয়টাকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি। কারন এখানে একটু পরিশ্তুরম করার মন মানুষিকতা থাকলে তুলনামুলক কম সময়ে নিজের স্কিল ডেভেলপ করা যায় আর ভাল ইনকামও করা যায়। এবং কাজের ক্ষেত্রেও সম্পূর্ণ স্বাধীনতা পাওয়া যায়।
 
তবে দুঃখ জনক হলেও আমার এই কথা গুলো হয়তো অনেকের কাছেই তেমন ভাল লাগবে না। আর আমাদের সমাজে এক শ্রেনির অভিভাবক আছে যারা নবম শ্রেণিতে পড়ার আগে ছেলে-মেয়েদের ডাক্তার / ইন্জিনিয়ার/বিসিএস ক্যাডার অথবা বড় কোন অফিসের বড় সাহেব বানাবে। আর লেখাপড়া শেষ হবার পর 1/2 বছর গেলে বলে এ্রবার যেকোন একটা কাজে লেগে পর তারা হয়তো রিতি মত আমার ওপর ক্ষেপে যাবে। সে যাই হোক আমি যে মিথ্যা বলছি না একটু চিন্তা করলে সেও হয়ত সেটা উপলব্ধি করতে পারবে।
 
সাধারণত একজন ফ্রিল্যান্সার দেশিয় কোন ভাল চাকুরিজিবির চেয়ে কোন অংশেই কম না। বরং অনেক ক্ষেত্রে সে বেশি-ই। যেমনঃ
1. একজন ফ্রিল্যান্সারের আয় করা অর্থ 100% সৎ ও হালাল।
2. বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে বলে তা দেশীয় অর্থনিতীতে বিশাল অবদান রাখে।
3. মুক্ত পেশাজিবি হওয়ার কারনে আরো চামচামি করতে হয় না।
4. একজন ফ্রিল্যান্সারকে মুক্ত মনা, স্বাধীনচেতা ও সৃজনশীল হতে হয়।
5. এরা অধ্যাবসায়ী, সময়ানুবর্তী ও শৃঙ্খলা পরায়ন হয়ে থাকে।
6. আন্তর্জাতিক জব মার্কেটে কাজ করতে হয় বিধায় একজন ফ্রিল্যান্সারকে অবশ্যই ইংরেজিতে দক্ষ হতে হয়।
7. অন্য কোন চাকুরিজিবিদের চেয়ে এরা পরিবারকে অনেক বেশি সময় দিতে পারে।
 
এছাড়াও আরো অকে সুবিধা আছে এ ধরনের পেশায়। তবে আমি এটাও বলতে চাচ্ছিনা যে আমাদের দেশিয় চাকুরিজিবিদের উপরের গুনাবলি গুলো একেবারেই নেই। তবে ক্ষেত্র বিশেষে এই গুন গুলো অনেকটা কম। আর অন্যের পিছনে বাঁশ দিয়ে ঘুস খেতে এদের অনেকেরই কোন জুরি নেই এটা নিশ্চিত।
 
একজন ফ্রিল্যান্সারের ক্ষেত্রে সমস্যা একটাই সেটা হলো বিয়ের বাজারে এদেরকে একজন পিওনের সমানও মনে করা হয় না। 🙂 জানিনা মেয়ের বাপ মায়েরা এটা কোন দিন বুঝবে কিনা যে একজন ফ্রিল্যান্সার ( অনলাইন পেশাজিবি) শুধু মাউস ক্লিক আর টােইপিং করেই ইনকাম করে না। বরং এরা কোন বিষেশ ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক মানের কাজে দক্ষ ও পরিশ্রমি।
 
যাইহোক বকবকানি তো অনেক হলো আর ধৈর্য সহকারে সম্পূর্ণ
পোষ্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। আর আপনি যদি ইতোমধ্যে এই পেশায় নিজেকে নিয়োজিত না করে থাকেন তাহলে আমার মনে হচ্ছে এই পেশার ক্ষেত্রে আপনার আগ্রহ আছে। আর এও মনে হচ্ছে যে আপনিও পারবেন এই পেশার একজন সফল ব্যাক্তি হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে। তো আর দেরি না করে আজ থেকেই শুরু হোক আপনার পথচলা। আর এ্ই পথচলা শুরু হতে পারে স্কিলড কারো সহায়তায়, কোন ভাল মানের ট্রেনিং সেন্টারের মা্ধ্যমে কিংবা অনলাইনে যে সব টিপস/ট্রিকস/টিউটোরিয়াল আছে তার মাধ্যমে। সে যাই হোক শুভ কামনা রইল আপনার জন্য। All the Best!

About সমীর চন্দ্র হালদার

সমীর চন্দ্র হালদার
ইমেইল মার্কেটিং এর মাধ্যেমে ফ্রিল্যান্সিং এ ক্যারিয়ার শুরু করা সমীর চন্দ্র হালদার বর্তমানে কাজ করছেন অনলাইন মার্কেটিং এর বেশ কয়েকটি শাখায়। নিজের দক্ষতা বাড়তে ট্রেনিং করেছেন নামকরা অনলাইন মার্কেটার Alex Jeffreys এর কাছে। বর্তমানে Upwork ও Fiverr এ ক্লায়েন্টের কাজ করার পাশাপাশি JvZoo এবং WarriorPlus এ রয়েছে নিজের প্রডাক্ট। এছাড়াও নিয়মিত কাজ করছেন Orville Robertson, Firas Alameh, Keith Burgess এবং Kevin Myles এর মত বড় বড় অনলাইন মার্কেটারদের প্রজেক্টে।

Check Also

Email-Marketing

ইমেইল মার্কেটিং দিয়েই হোক ফ্রিল্যান্সিং এর শুরু (প্রথম পর্ব)

”ইমেইল মার্কেটিং দিয়েই হোক ফ্রিল্যান্সিং এর শুরু” এই শিরোনামটা দেখেই হয়ত বুঝতে পারছেন যে আজ …